eCab-EC-meets-ICT-state-minister

আজ (৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ বৃহস্পতিবার) ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব) এর কার্যনির্বাহী পরিষদের নব-নির্বাচিত নেতৃবৃন্দ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এর সঙ্গে এক সৌজন্য সাক্ষাৎকারে মিলিত হন। এ সৌজন্য সাক্ষাতে ই-ক্যাব নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশের ই-কমার্স সেক্টরে বিরাজমান বিভিন্ন সমস্যা এবং এ নিয়ে পরিকল্পনা এবং প্রস্তাবের কথা জনাব পলকের কাছে তুলে ধরেন।

প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ই-ক্যাব এর নব-নির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটিকে শুভচ্ছা এবং অভিনন্দন জ্ঞাপন করেন। তিনি ই-ক্যাব নেতৃবৃন্দকে তাঁর মন্ত্রণালয় থেকে সবরকম সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস দেন।

জনাব পলক বাংলাদেশের ই-কমার্স সেক্টরে বিরাজমান সমস্যা সমূহ সমাধানের লক্ষ্যে পলিসি ডায়ালগ আয়োজন করা এবং ই-কমার্সের উপরে নীতিমালা প্রণয়নের উপরে গুরুত্বারোপ করেন। তিনি ই-ক্যাব নেতৃবৃন্দকে একটি খসড়া নীতিমালা তৈরি করার পরামর্শ দেন এবং এ ব্যাপারে তাঁর মন্ত্রনালয় থেকে সবরকমের সহযোগিতা প্রদানের কথা বলেন।যত দ্রুত সম্ভব এ নীতিমালা প্রণয়নের জন্যে তিনি তার মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় নির্দেশও প্রদান করেন।

এছাড়াও ই-কমার্সের অন্যান্য সমস্যা যেমন-ডেলিভারি, পেমেন্ট, দেশি-বিদেশী বিনিয়োগ, সহ অন্যান্য বিষয় নিয়ে প্রতিমন্ত্রীর সাথে ই-ক্যাব নেতৃবৃন্দের দীর্ঘ আলোচনা হয়।

ই-ক্যাব নেতৃবৃন্দ ট্রেড লাইসেন্সে ই-কমার্সকে নতুন বিভাগ হিসেবে অন্তর্ভূক্ত করা, ই-কমার্সের বাজার বিশ্লেষণ ও বিভিন্ন ধরণের গবেষণাকার্য পরিচালনায় সহযোগিতা করার জন্যে প্রতিমন্ত্রীকে অনুরোধ জানালে তিনি তৎক্ষণাৎ সম্মত হন এবং এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণের আশ্বাস প্রদান করেন।

বাংলাদেশের ই-কমার্স সেক্টরে বিরাজমান বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে প্রতিমন্ত্রী পলকের আন্তরিকতা এবং ত্বরিত পদক্ষেপ সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য ই-ক্যাব নেতৃবৃন্দ তাকে স্বাগত জানান।

ই-ক্যাব সভাপতি রাজিব আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুল ওয়াহেদ তমাল, অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ আব্দুল হক, ডিরেক্টর(গভর্ণমেন্ট অ্যাফেয়ার্স) মোঃ আরিফুল হাই রাজীব, ডিরেক্টর(ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্স) তানভির এ মিশুক, ডিরেক্টর নাছিমা আক্তার এবং আফজাল হোসেন এ সাক্ষাতে উপস্থিত ছিলেন।

ই-ক্যাব ওয়েবসাইটঃ e-cab.net/